Connect with us

রূপালী আলো

যে কারণে জঙ্গিদের লাশ পরিবারকে দেওয়া হয় না

Published

on

কল্যাণপুরে নিহত ৯ জঙ্গি

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের অভিযানে নিহত জঙ্গিদের লাশ নিতে স্বজনদের সবসময় নিরুৎসাহী করা হয়। এরপরও স্বজনরা জঙ্গিদের লাশ চাইলেও তা ফেরত না দিয়ে বেওয়ারিশ হিসেবেই দাফন করার ব্যবস্থা করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। যদিও তারা দাবি করেন, স্বজনরা লাশ নিতে অস্বীকার করেছেন। কৌশলগত কারণেই জঙ্গিদের লাশ স্ব-স্ব পরিবারের কাছে দেওয়া হয় না বলে জানিয়েছেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ও নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা। তাদের দাবি, জঙ্গিদের প্রতি সাধারণ মানুষের ঘৃণার কারণও এটি। এছাড়া জঙ্গিদের কবর ঘিরে যেন বিশেষ কোনও স্থাপনা গড়ে উঠতে পারেন, সে কারণেও লাশ স্বজনদের দেওয়া হয় না।

২০১৬ সালের ১ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালায় জঙ্গিরা। এ ঘটনায় দেশি-বিদেশি ২০ নাগরিক নিহত হন। এছাড়া হামলার সময় পুলিশি অভিযানের শুরুতে জঙ্গিদের হামলায় নিহত হন রবিউল ইসলাম ও সালাউদ্দিন খান নামে দুই পুলিশ কর্মকর্তা। আহত হন আরও ২৫ পুলিশ সদস্য। পরদিন সকালে সেনা কমান্ডোর নেতৃত্বে যৌথ অভিযানে রোহান ইমতিয়াজ, নিবরাস ইসলাম, মীর সামিহ মোবাশ্বের, খায়রুল ইসলাম পায়েল ও শফিকুল ইসলাম উজ্জ্বল নামে পাঁচ জঙ্গি নিহত হয়। এছাড়া নিহত হন সাইফুল ইসলাম চৌকিদার নামে এক শেফও। হামলায় অংশ নেওয়া পাঁচ জঙ্গি ও সন্দেহভাজন শেফের লাশ দীর্ঘদিন ধরে হাসপাতালের মর্গে ছিল। অনেকের পরিবার তাদের লাশ নিতে চায়নি। পুলিশ প্রায় দাবি করে, জঙ্গিদের লাশ নিতে চায় না তাদের পরিবার। এ ঘটনার প্রায় দুই মাস পর ২২ সেপ্টেম্বর ছয়জনের লাশ বেওয়ারিশ হিসেবে জুরাইন কবরস্থানে দাফন করা হয়।

গত বছরের ২৬ জুলাই কল্যাণপুর জঙ্গি আস্তানায় কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) অভিযানে নিহত নয় জঙ্গি। ঘটনার দুই মাস পর ২৮ সেস্টেম্বর তাদের লাশও বেওয়ারিশ হিসেবে আঞ্জুমান মফিদুলের কাছে দেওয়া হয়। ওইদিনই ৯ জঙ্গির লাশ জুরাইন কবরস্থানে দাফন করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

নারায়ণগঞ্জের জঙ্গি আস্তানায় নিহত তিন জঙ্গি, সিলেটের আতিয়া মহলের চার জঙ্গি, রাজশাহীর গোদাগাড়ীর আস্তানায় নিহত পাঁচ জঙ্গির লাশ পরিবার নিতে না চাওয়ায় তাদের লাশ বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হয়।

মৌলভীবাজারে বড়হাট ও নাসিরপুরের জঙ্গি আস্তানায় জঙ্গিবিরোধী অভিযানে ৪ শিশুসহ ১১ জন নিহত হয়। সবার লাশ বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হয়।

পুলিশের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘জঙ্গিদের পরিচয় দিতেই তাদের স্বজনরা লজ্জা পান। কোনও পরিবারের সদস্য যদি জঙ্গি কার্যক্রমে জড়িয়ে পড়ে, তারা সামাজিকভাবেই হীনমন্যতায় ভোগেন। তারা আর ওই জঙ্গির লাশ নিতে চান না। এমনকি তারা এসব এড়িয়ে চলেন। তাই তাদের লাশ দেওয়া হয় না। কেউ কখনও দেখতেও আসেন না।’ তিনি বলেন, ‘কয়েকটি ঘটনায় লাশ চাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। তবে আইনি জটিলতা ও পরবর্তী সময়ে স্বজনদের অনাগ্রহের কারণে তা আর হয়নি। এছাড়া জঙ্গিদের লাশ নিয়ে পরবর্তী সময়ে যেন কোনও অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা না ঘটে, সে বিষয়টিও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের মাথায় রাখতে হয়। তাই নিরাপদ স্থানে তাদের দাফন সম্পন্ন করা হয়।’

জঙ্গিদের লাশ চিহ্নিত হওয়ার পরও পরিবারের কাছে হস্তান্তর না করার বিষয়ে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক একাধিকবার বলেছেন, ‘জঙ্গিদের লাশ তাদের স্বজনরা নিতে চান না। তাই বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হয়। জঙ্গিদের তাদের পরিবার ও সমাজ ঘৃণা করে।’

এ বিষয়ে নিরাপত্তা বিশ্লেষক ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব.) এম সাখাওয়াত হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত এমন কোনও বড় জঙ্গি নেই, যার কবর ঘিরে বড় কোনও বিশেষ জায়গা গড়ে উঠবে। তবে সতর্ক থাকা ভালো। গুলশানে যে ঘটনাটি ঘটছে, তা আকস্মিক। এটা ঘটার কথা ছিল না।’ তিনি বলেন, ‘নিহত ব্যক্তির দাফনের বিষয়ে আমাদের আইনগত বাধ্যবাদকতা রয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা যাদের বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করেছে, হয়তো তাদের পরিবার নিতে চায়নি। তবে তাদের দাফন করা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা দেশের বিভিন্ন এলাকায় জঙ্গি সন্দেহে অভিযান চালিয়েছে। এরমধ্যে গত ৯ মাসে ভয়াবহ ২০টি জঙ্গি আস্তানায় অভিযানের সময় হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তথ্য অনুযায়ী, এসব জঙ্গি আস্তানায় ৮শিশু, ৭নারী ও ৪৩ পুরুষ জঙ্গি নিহত হয়েছে।

Leave a comment

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook

রূপালী আলো15 hours ago

সম্পুরণী ব্র্যান্ডের জমকালো র‍্যাম্প শো !

রূপালী আলো3 days ago

ইউটিউবে মুক্তি পেল শর্টফিল্ম “দি রেইড” (ভিডিও)

স্বপ্নবাজ শর্ট ফিল্ম
রূপালী আলো3 days ago

প্রশ্নফাঁস ও পরীক্ষা জালিয়াতি নিয়ে শর্টর্ফিল্ম স্বপ্নবাজ ইউটিউবে (ভিডিও সহ )

কবি সৈয়দ আল ফারুক ও শিল্পী নাহিদ নাজিয়া 
সঙ্গীত5 days ago

রোম মাতাবেন কবি সৈয়দ আল ফারুক ও শিল্পী নাহিদ নাজিয়া 

গ্লিটজ7 days ago

নির্মাতা নাসিম সাহনিকের নতুন নাটক

গ্লিটজ7 days ago

বাংলা টিভিতে আম্মাজান ফিল্ম এর ‘ব্রোকেন জোন’

অন্যান্য1 week ago

মাদার টেক্সটাইল মিলসের বার্ষিক দোয়া অনুষ্ঠিত

সঙ্গীত1 week ago

ইউটিউবে শাহাজাহান সোহাগের ‘এলোরে এলো বৈশাখ’

রূপালী আলো2 weeks ago

লুইপার ‘জেন্টলম্যান’ সিয়াম

গ্লিটজ2 weeks ago

বৈশাখে গান ও নাটক নিয়ে নির্মাতা নাসিম সাহনিক

মাসুমা রহমান নাবিলা (Masuma Rahman Nabila)। ছবি : সংগৃহীত
ঘটনা রটনা4 weeks ago

‘আয়নাবাজি’র নায়িকা মাসুমা রহমান নাবিলার বিয়ে ২৬ এপ্রিল

‘মিথ্যে’-র একটি দৃশ্যে সৌমন বোস ও পায়েল দেব (Souman Bose and Payel Deb in Mithye)
অন্যান্য4 weeks ago

বৃষ্টির রাতে বয়ফ্রেন্ড মানেই রোম্যান্টিক?

Bonny Sengupta and Ritwika Sen (ঋত্বিকা ও বনি। ছবি: ইউটিউব থেকে)
টলিউড4 weeks ago

বনি-ঋত্বিকার নতুন ছবির গান একদিনেই দু’লক্ষ

লাভ গেম-এর পর ঝড় তুলেছে ডলির মাইন্ড গেম (ভিডিও)
অন্যান্য1 month ago

লাভ গেম-এর পর ঝড় তুলেছে ডলির মাইন্ড গেম (ভিডিও)

ভিডিও3 months ago

সেলফির কুফল নিয়ে একটি দেখার মতো ভারতীয় শর্টফিল্ম (ভিডিও)

ঘটনা রটনা3 months ago

ইউটিউবে ঝড় তুলেছে যে ডেন্স (ভিডিও)

ওমর সানি এবং তিথির কণ্ঠে মাহফুজ ইমরানের ‌'কথার কথা' (প্রমো)
সঙ্গীত4 months ago

ওমর সানি এবং তিথির কণ্ঠে মাহফুজ ইমরানের ‌’কথার কথা’ (প্রমো)

সালমা কিবরিয়া ও শাদমান কিবরিয়া
সঙ্গীত4 months ago

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গান গাইলেন সালমা কিবরিয়া ও শাদমান কিবরিয়া

মাহিমা চৌধুরী (Mahima Chaudhry)। ছবি : ইন্টারনেট
ফিচার6 months ago

এই বলিউড নায়িকা কেন হারিয়ে গেলেন?

'সেক্সি মুভস না করে বরং পোশাক ছিঁড়ে ক্লিভেজ দেখাও'
বলিউড6 months ago

‘সেক্সি মুভস না করে বরং পোশাক ছিঁড়ে ক্লিভেজ দেখাও’

সর্বাধিক পঠিত