fbpx
Connect with us

রূপালী আলো

কিছুক্ষণ | চাঁদনী ইসলাম | ছোট গল্প

Published

on

কিছুক্ষণ | চাঁদনী ইসলাম | ছোট গল্প
কিছুক্ষণ | চাঁদনী ইসলাম | ছোট গল্প

আর কিছুক্ষণ থাকো।
কেন?
মনে হল।
রাস্তা তো পার করে দিলাম। রিকশাও আছে। বাসায় যা!
তুমিও জানো, আমিও জানি যে আমার মত মেয়েকে তোমার হাত ধরে রাস্তা পার করিয়ে দেওয়ার কোন দরকার ছিল না।
হ ভাই, তুমি সব পারো! ইউ ডোন্ট নিড এনি নাইট ইন শাইনিং আরমর।
ট্রু! অ্যান্ড ইউ জাস্ট ওয়ান্টেড টু হোল্ড মাই হ্যান্ড!
তো?
তো, তাই যখন সত্যি তাহলে আর কিছুক্ষণ ধরে রাখো।
রোমান্টিক কথাবার্তা তোকে ঠিক স্যুট করে না।
রোমান্স না। ফার-সাইটেডনেস। ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে বলছি।
আমাদের ভবিষ্যৎ?
নোপ। তোমার আর আমার ভবিষ্যৎ। আলাদা আলাদা।
বাপরে!

ধর। আর এক-দেড় বছর। তারপর তুমি তোমার ভার্সিটির এক তাক লাগানো হটিকে ডেট করবা। দুই মাসের মধ্যে ওই বড়লোকের কন্যা উইল বি বোর্ড উইথ ইওর কিপটামি। আর ডাম্প করে দিবে! তুমি ওকে সকাল বিকাল বিচ বলে গালি দিবা। তখন তোমার আমার সাথে কাটানো এই কিছুক্ষণ খুব সুন্দর মনে হবে। আফসোসও হতে পারে একটু একটু।
তাই না? আর তোর কি হবে? তুই তোর ভার্সিটির কোন পপুলার ভাইয়ার সাথে চুটিয়ে প্রেম করতে যাবি। আর দেন ধরা খাবি যখন বাইর হবে যে, শালা তার হাই স্কুল স্যুইট হার্টের সাথে এখনও ঘুরে বেড়ায়। টু-টাইমিং!

তখন আমিও ওই শালাকে না হয় বাস্টার্ড বলে তোমার-আমার এই কিছুক্ষণের কথা মনে করব! এ জন্যই তো বলছি থাকো।
কিছুক্ষণ কেন? লেটস ডেট। দেখি কি হয়।
কি দরকার রিস্ক নেওয়ার? দেখা যাবে নিজেরাই নিজেদের ওই বিচ আর বাস্টার্ড বলে গালি দিচ্ছি শেষ-মেষ!
তা-ও ঠিক। আচ্ছা, হোয়াট আবাউট ম্যারেজ?
নাহ! আমাদের বিয়ে হবে না। ম্যারেজ ইজ টিল ডেথ, আই ক্যানট টলারেট ইউ টিল ডেথ!
বাট তোর তো আর তিন বছরের মধ্যেই বিয়ে হল বলে। আঙ্কেল সুযোগ্য পাত্র নিয়ে আসবেন। দামি রেস্টুরেন্টের ঢিমা আলোতে তোর উপর ফার্স্ট ইম্প্রেশান জমানো বাদ দিয়ে মোবাইল টিপবে। মাথায় টাক থাকবে হালকা কিন্তু বাপ-মা হাই সোসাইটি। সেই লেভেল। কি করবি তখন?

তোমার কথা ভাবব। আর এই কিছুক্ষণের চাপে পড়ে বিয়ে ভেঙে দেব।
যাহ্! আমি এরকম কিছু করব না কিন্তু।
জানি আমি। তোমার মা; তোমার ওই ফর্সা কাজিনটা আছে না? যে কোন ফ্রেন্ডের বিয়ে লাগলেই টিকলি মাথায় প্র-পিক দেয়? ওর সাথে তোমার বিয়ে দিতে চাইবেন।
আমি এই জন্মে রাজি হব না।
হবা হবা! পুরুষ মানুষ!
উহু। আমি তো ওই মেয়ের সাথে কথা বলারই কিছু খুঁজে পাই না। আর সব চাইতে বড় সমস্যা!

কি?
এই যে তোর এই কিছুক্ষণ।
আর কখন কখন লাগবে? কখন কখন কাজে দিবে?
যখন প্রথম রিজেকশান লেটার পাব বাইরের ইউনিভার্সিটি থেকে কিন্তু শেয়ার করার জন্য তুই থাকবি না।
মাস্টার্সের থিসিসে এ প্লাস মিস করব। বাট “এভ্রিথিং উইল বি ফাইন” বলার বা শোনার মত আমাদের সম্পর্ক থাকবে না।
হুম। খুব কাজে দিবে তখন এই কিছুক্ষণ। বাই দা ওয়ে, আমাদের কথা বন্ধ থাকবে কেন?
তোমার কথাবার্তা, আচার আচরণে বিরক্ত হয়ে হয়ত আমি ডিসাইড করব, ‘রাখব না আর এই নেগেটিভ মানুষটাকে জীবনে’।

হা হা। তোর মাথা। তুই আমাকে ভালোবেসে ফেলবি। তাই আর এই ইজি হ্যাংআউট আর মন খুলে সব শেয়ার করা মেনে নিতে পারবি না। কুলায়ে উঠতে পারবি না আর কি।
ওহ, তাই না কি? আর তুমি? তোমার তো কিছুই যাবে আসবে না, রাইট?
একদমই না। মাঝে মাঝে মনে পড়তে পারে অবশ্য। যেমন নীল শাড়ি পরা কাউকে দেখলে, হাজেলনাট ফ্রাপে কোন মেন্যুতে দেখলে, টিভিতে ফ্রেন্ডস দেখালে, বৃষ্টি হলে। কিন্তু দিব্যি ইগনোর করা যাবে ফিলিংসগুলা।

গুড। ইগনোর করতে পারলেই ভালো।
ইগনোর করাতে চাইলে আর এই কিছুক্ষণ তৈরি করিস না। বাড়ি যা।
যতটুকু কিছুক্ষণ তৈরি হয়েই গেছে, তাতে প্রবলেম হবে না?
না। দিস ইস ট্রেসার!
হাউ সো?
যখন আর পাঁচ বছর পর একা একা ইউরোপে ব্যাকপ্যাকিং করতে যাব, প্রথমবার আইফেল টাওয়ারের সামনে দাড়িয়ে এই কিছুক্ষণ আমাকে মুচকি হাসাবে।
আহ, ইউ উইশ! তোমার ততদিনে একটা নেকা বউ থাকবে পাশে। যে তোমার ব্যাকপ্যাকিং এর স্বপ্ন ধূলিসাৎ করে ফাইভ স্টার হোটেলে চেকইন দিবে আর চৌদ্দ ঘণ্টা ধরে আইলাইনার ঠিক করবে।

তাহলে তোর এই কিছুক্ষণ আমার আরও বেশি দরকার রে। এনিওয়ে তোর কি হবে পাঁচ বছরে? ইউ উইল বি ম্যারিড, ডেফিনিটলি!
না না। আমি পিএইচডি না করে বিয়ে করব না।
যা ভাগ। দেখিস তুই আরও মহা আনন্দে একজনকে ভালোবাসবি। আমার মত না, কিন্তু মোটামুটি ভালোই। আর বিয়ে করে বুঝবি যে তোর হানি-বু বয়ফ্রেন্ড বেসিকালি আর দশটা হাজবেন্ডের মতই ইনসেনসিটিভ। অভিমানের একা মুহূর্তগুলাতে তোর জন্য এই কিছুক্ষণ ঝামেলা আরও বাড়াবে না?

নাহ। ইট উইল বি এ গুড মেমরি দেন। তুমি যেইটা বললা, ট্রেসার!
আচ্ছা, একটা কথা বল তো, আমরা এই কিছুক্ষণগুলোকে সারাক্ষণের জন্য কেন বানিয়ে নিচ্ছি না?
কারণটা তুমি আমার চেয়েও ভালোমত জানো। সো আর কথা না বাড়াই? রিপিটেশান কজেজ ইরিটেশান।
তাও ঠিক। প্লাস, এইসব কিছুক্ষণ বলেই হয়ত এত মায়া কাজ করছে। সারাক্ষণ হলে অসহ্য লাগত। বলে না, ঘার কা মুরগি দাল বারাবার? হাসিস কেন? আর দেখা হবে? আর আসবি না তুই, না?
অনেকদিন পর দেখা হবে।
দুজনেই দুজনকে বলব, ‘কত দিন দেখা হয় না’।
তারপর কেটে যাবে দিনের পর দিন, মাসের পর মাস, বছরের পর বছর।
তারপর হয়ত জানা যাবে, হয়ত জানা যাবে না।
যে তোমার সাথে আমার আর আমার সাথে তোমার…
… আর দেখা হবে না।

 

 

মন্তব্য করুন
Advertisement
Advertisement
শাকিব খান ও রোদেলা জান্নাত। ছবি : ইউটিউভ
বাংলা সিনেমা3 weeks ago

শাকিব খান- রোদেলা জান্নাতের চুমুর দৃশ্য একদিনেই ভাইরাল (ভিডিও)

সোনিয়া খান। ছবি : ফেসবুক
অন্যান্য3 weeks ago

‘নায়িকা’ হলেন সোনিয়া খান

ইত্যাদিখ্যাত কণ্ঠশিল্পী আকবরের নতুন গান
সুরের মূর্ছনা4 weeks ago

ইত্যাদিখ্যাত কণ্ঠশিল্পী আকবরের নতুন গান

শাহরুখ-কন্যা সুহানা খান। ছবি : ইন্টারনেট
বলিউড4 weeks ago

পানির নীচে কার সঙ্গে শাহরুখ-কন্যা সুহানা! (ভিডিও)

গুলশান-বনানীর পারিবারিক জীবন নিয়ে শর্টফিল্ম 'অপরাধী'
অন্যান্য4 weeks ago

গুলশান-বনানীর পারিবারিক জীবন নিয়ে শর্টফিল্ম ‘অপরাধী’

সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলের মরুভূমিতে বন্যা। ছবি: সংগৃহীত
রূপালী আলো3 months ago

সৌদি আরবের মরুভূমিতে বন্যা! (ভিডিও)

বিয়ের প্রথম রাতে নারী-পুরুষ উভয়েই মনে রাখবেন যে বিষয়গুলো
রূপালী আলো3 months ago

বিয়ের প্রথম রাতে নারী-পুরুষ উভয়েই মনে রাখবেন যে বিষয়গুলো

আরমান আলিফ
রূপালী আলো3 months ago

সন্দেহ ডেকে আনে সর্বনাশ : আরমান আলিফ

সালমান শাহকে নিয়ে সেই গান প্রকাশ হল
রূপালী আলো5 months ago

সালমান শাহকে নিয়ে সেই গান প্রকাশ হল, পরীমনির প্রশংসা

পাকিস্তানের ক্যাপিটাল টিভি চ্যানেলে প্রচারিত টকশোর স্ক্রিনশট। ছবি: সংগৃহীত
রূপালী আলো5 months ago

সুইডেন নয়, পাকিস্তান এখন বাংলাদেশ হতে চায় (ভিডিও)

সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : বীরেন মুখার্জী
হেড অব মার্কেটিং : দীনবন্ধু রায়
প্রকাশক : রামশংকর দেবনাথ
বিভাস প্রকাশনা কর্তৃক ৬৮-৬৯ প্যারীদাস রোড, বাংলাবাজার, ঢাকা-১১০০ থেকে প্রকাশিত।
ফোন : +88 01687 064507
ই-মেইল : rupalialo24x7@gmail.com
© ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রূপালীআলো.কম