fbpx
Connect with us

রূপালী আলো

এফডিসিতে নানা অনিয়ম!

Published

on

এফডিসিতে নানা অনিয়ম!

নানা অনিয়মের মধ্যেই চলছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন (বিএফডিসি)। শুটিং শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ফ্লোরের ভাড়া থেকে কর্মচারীদের অতিরিক্ত বিলের আবদারে গুনতে প্রায় পরিচালকরাই হতাশ। কেউ চক্ষু লজ্জায় কথা না বললেও প্রতিটি পরিচালকের অন্তরে ক্ষোভের যেন অন্ত নেই। তাদের মধ্যেও দেখা গেছে নতুন রকমের ফন্দি। প্রথমে বাইরের নতুন কোন শুটিং করতে আসলে তাকে এনালিস্টেড হতে বলা হয়। কিন্তু অল্প সময়ে তা হতে না পারলে এফডিসিতে কোন প্রডাকশনের লোকদের পাল্লায় পরে তাকে সেই শুটিং করতে হয়। কেননা তাদের সাথে জড়িত অনেক প্রডাকশনের এনালিস্টেড আগে ভাগে করাই থাকে। এছাড়াও বাইরে কোন শুটিং ফ্লোরে কাজ করলে জোর পূর্বক তাকে লাইট ধরিয়ে দিকে বিভিন্ন খাতে বিল ধরিয়ে দেন তারা। তাতে করে বাইরের পরিচালকদের মনেও এই খাতে তাদের খারাপ ধারণা তৈরী হয়।

নাম প্রকাশে অনেচ্ছুক এক নির্মাতারা জানান, এখানে যতো কর্মচারী আছে এরা শুধু টাকা চেনে আর অন্য কিছু চেনে না। শুটিং শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত শুধু তাদের বিল দিতেই শুটিং এর অর্ধেক টাকা শেষ হয়ে যায়। অন্যদিকে এই ছোট্ট প্রতিষ্ঠানে যেখানে দরকার সর্বোচ্চ ৪০-৪৫ জন কর্মচারী, সেখানে ৩০০-৪০০ জন কর্মচারী নিয়োজিত আছেন। তাহলে নিশ্চিত প্রতিমাসে সরকারের এ খাতে ভূর্তুকি দিতে হচ্ছে। আমরা এখন মনেই করে নিতে পারি এই জন্যই সরকার আমাদের এই প্রতিষ্ঠানের দিকে নজর দিচ্ছে না।

তিনি আরও বলেন, আমাদের এফডিসিতে যে কয়টি ফ্লোর আছে তার বেশির ভাগই ভাড়া দেওয়া আছে বেসরকারী টিভি চ্যানেলের কাছে। যেখানে আমরা শুটিং এর জন্য বেশিরভাগ সময়ই ফ্লোর পাইনা। আসলে এসব অনিয়মে দেখার কেউ নাই। এ রকম দিনের পর দিন চলতে থাকলে সত্যি সত্যি ভূতুরে বাড়ীতে পরিনিত হবে। আবার বাইরের থেকে অনেক বেশি ভাড়া গুনতে হয় তাদের এফডিসিতে শুটিং করতে গেলে। সরকারি প্রতিষ্ঠানটি থেকে ক্যামেরা ভাড়া নিয়ে অনেকেই পড়েন বিপদে। এর কারণ শিফট হিসেবে অনেক টাকা দিতে হয়, আর শুটিংয়ে সময়সীমা অতিক্রম করলে সেটা নিয়েও পোহাতে হয় ঝক্কি।

এফডিসিতে গেলে এক মাথা থেকে আরেক মাথায় যেতে সময় লাগত ঘণ্টা খানেক। তখন এফডিসির আয়তন বেশি ছিল না ঠিকই, কিন্তু একটু পর পরই দেখা যেত সেট ফেলে চলছে শুটিং। কেউ চাইলেই এক মাথা থেকে অন্য প্রান্তে যেতে পারত না, যতক্ষণ না পর্যন্ত ক্যামেরা বন্ধ না হয়। এখন আর সেই দৃশ্যে চোখে পড়ে না। এর কারণ এফডিসিতে এখন আর শুটিং করতে আগ্রহ দেখান না নির্মাতারা। কেন আগ্রহ হারিয়ে ফেলছেন তারা?

এছাড়াও একজন প্রযোজক প্লাস অভিনেতা জানায়, বর্তমান চলচ্চিত্রের অবস্থা এখন খুবই খারাপ। বেশ করে এফডিসির ভিতরের খ্বুই বাজে অবস্থা। অনেকের কোন কাজ নেই যারা কিনা উৎ পেতে বসে আছেন নতুন কোন প্রযোজক কে গ্রাস করে খাওয়ার জন্য। প্রথমে একজন প্রযোজক আসেন টাই আর স্যুট পরে, পরে তার বের হওয়ার সময় লুঙ্গি আর সেন্ডেলও খুঁজে পায় না! তাহলে কেন সে পরবর্তিতে এখানে এসে অর্থ লগ্নি করবে। আর একটি কথা না বললেই নয়, সরকারী প্রতিষ্ঠানগুলো রাখা হয় দেশ ও জাতির সুযোগ সুবিধা গুলো বেশি পাওয়ার জন্য। কিন্তু বর্তমানে বাইরের শুটিং এর চেয়ে এফডিসিতে আরো বেশি ভয়ংকর অবস্থা তৈরী হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ধরুন বাইরে যদি একটি ডিম ৩ টাকায় পাওয়া যায়। সেই ডিম একজন পরিচালক, প্রযোজক এফডিসিতে ৮ টাকায় কেন কিনবে! আমার কাছে মনে হয় কোন সরকারী বিরোধী লোক এফডিসিতে আছেন তা না হলে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়া একটি সরকারী প্রতিষ্ঠানের এভাবে কেউ ক্ষতি কেউ চাইতো না। সরকার ইতিমধ্যে অনেক সংগঠনের জন্য প্রায় ৪ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছেন। দেশরতœ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অবশ্যই সংস্কৃতিক মনা। সে আমাদের এই অঙ্গনকে অনেক বেশি ভালোবাসেন। কিছু লোকের জন্য এই অঙ্গনটা একেবারেই ধ্বংসের পথে। যা খুবই দুঃখজনক।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এফডিসিতে রেড স্কারলেট ক্যামেরার ভাড়া প্রতি শিফট সাড়ে চার হাজার টাকা। এই টাকার মধ্যে ক্যামেরার মূল অংশ, লেন্স ও ট্রাইপডের জন্য আলাদা আলাদা হিসাবে ভাড়া ধরা হয়। একদিনে দুই শিফট হিসেবে এই ক্যামেরার ভাড়া দাঁড়ায় নয় হাজার। তা ছাড়া রাত ১১টার পরে শুটিং করলে প্রতিঘণ্টার জন্য অতিরিক্ত টাকা গুনতে হয় প্রযোজকের। আর রাত ১১টার পর যদি তিন ঘণ্টা পেরিয়ে যায় তাহলে এক শিফটের ভাড়া সাড়ে চার হাজার টাকা বেশি দিতে হয়। কারো যদি পুরো দিন গড়িয়ে রাত দুটা পর্যন্ত শুটিং চলে তাহলে তার ক্যামেরার ভাড়া পড়ে সাড়ে ১৩ হাজার টাকা। অথচ বাইরের যেকোনো প্রোডাকশন হাউজ থেকে ২৪ ঘণ্টার জন্য এই রেড স্কারলেট ক্যামেরা ভাড়া পাওয়া যায় সাড়ে চার হাজার থেকে পাঁচ হাজার টাকায়। এফডিসিতে ১৬ ঘণ্টাতেই দিতে হচ্ছে নয় হাজার টাকা। আর ১৯ ঘণ্টা ব্যবহারে খরচ পড়ছে সাড়ে ১৩ হাজার টাকা। এফডিসিতে সকালে অফিস খোলার পর ক্যামেরা বের করতে করতে বেজে যায় সকাল ৯টা। প্রথম শিফট শেষ হয় বিকেল ৪টায়। ৪টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত দ্বিতীয় শিফট ধরা হয়। দ্বিতীয় শিফট অতিক্রম করলেই বাড়তি টাকা যোগ করতে হয় ভাড়ার সঙ্গে।

মন্তব্য করুন
Continue Reading
Advertisement
Advertisement
ইত্যাদিখ্যাত কণ্ঠশিল্পী আকবরের নতুন গান
রূপালী আলো7 months ago

ইত্যাদিখ্যাত কণ্ঠশিল্পী আকবরের নতুন গান

শাহরুখ-কন্যা সুহানা খান। ছবি : ইন্টারনেট
রূপালী আলো7 months ago

পানির নীচে কার সঙ্গে শাহরুখ-কন্যা সুহানা! (ভিডিও)

গুলশান-বনানীর পারিবারিক জীবন নিয়ে শর্টফিল্ম 'অপরাধী'
রূপালী আলো7 months ago

গুলশান-বনানীর পারিবারিক জীবন নিয়ে শর্টফিল্ম ‘অপরাধী’

সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলের মরুভূমিতে বন্যা। ছবি: সংগৃহীত
রূপালী আলো9 months ago

সৌদি আরবের মরুভূমিতে বন্যা! (ভিডিও)

বিয়ের প্রথম রাতে নারী-পুরুষ উভয়েই মনে রাখবেন যে বিষয়গুলো
রূপালী আলো10 months ago

বিয়ের প্রথম রাতে নারী-পুরুষ উভয়েই মনে রাখবেন যে বিষয়গুলো

আরমান আলিফ
রূপালী আলো10 months ago

সন্দেহ ডেকে আনে সর্বনাশ : আরমান আলিফ

সালমান শাহকে নিয়ে সেই গান প্রকাশ হল
রূপালী আলো12 months ago

সালমান শাহকে নিয়ে সেই গান প্রকাশ হল, পরীমনির প্রশংসা

পাকিস্তানের ক্যাপিটাল টিভি চ্যানেলে প্রচারিত টকশোর স্ক্রিনশট। ছবি: সংগৃহীত
রূপালী আলো12 months ago

সুইডেন নয়, পাকিস্তান এখন বাংলাদেশ হতে চায় (ভিডিও)

Drink coffee in a tank of thousands of Japanese carp in Saigon
রূপালী আলো12 months ago

যে রেস্টুরেন্টে আপনার পা নিরাপদ নয় (ভিডিওটি ২ কোটি ভিউ হয়েছে)

ঘাউড়া মজিদ এখন ব্যবসায়ী
রূপালী আলো12 months ago

‘ঘাউড়া মজিদ এখন ব্যবসায়ী’ (ভিডিও দেখুন আর হাসুন)

সর্বাধিক পঠিত